শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বসতভিটা ও চাষাবাদের ৩৩ শতক জমি রক্ষায় নিঃস্ব ফৈমুদ্দিন শুধুই কাঁদছেন! লালমনিরহাটের গোকুন্ডায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে অমানসিক নির্যাতনে অভিযোগ মই দিয়ে ৫ কোটি টাকায় সেতুতে উঠছেন স্থানীয়রা! ইলিয়াস মোল্লা’কেই পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে চায় লাউকাঠী ইউনিয়নবাসী শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ভুট্টাক্ষেতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ তিস্তা বাঁচাও ভাঙ্গন ঠেকাও শীর্ষক তিস্তা কনভেনশন কাজীর কান্ড! কাবিননামা নিতে ৩০ হাজার টাকা দাবি

৯৬ থানা মনিটরিং হচ্ছে মনিটরে

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬৬ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

বাংলার সংবাদ ডেস্ক ।। পুলিশের কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করতে ঢাকা রেঞ্জের ১৩ জেলার ৯৬টি থানায় বসানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। সেই ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় স্থাপিত নিয়ন্ত্রণকক্ষ থেকে। ক্যামেরায় দেখা যাচ্ছে ডিউটি অফিসার, হাজতখানা ও নিরাপত্তারক্ষীর অবস্থান।

ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি নুরে আলম মিনা জানালেন, পুলিশি সেবার মূল কেন্দ্র থানার কার্যক্রম নিয়ে আসা নানা অভিযোগ অনিয়ম মনিটরিং করতেই এমন ব্যবস্থা।

নুরে আলম মিনা বলেন, যাদের গ্রেপ্তার করে আনা হয়। তাদের সংখ্যা কত এবং ব্যবহার কেমন করা হয়, সে বিষয়গুলো যাতে পর্যবেক্ষণ করা যায় তাই এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ৯৬ থানার প্রকল্প প্রথম হাতে নিয়েছি। এর সফলতা আসলে পর্যায়ক্রমে আরও বাড়ানো হবে।

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসারের টেবিলে চকলেট নেই। ঢাকার নিয়ন্ত্রণকক্ষে বসে সেই দৃশ্য দেখছেন অতিরিক্ত ডিআইজি নুরে আলম মিনা। সঙ্গে সঙ্গে টেবিলে চকলেট না থাকার কারণ জানতে চান তিনি। দায়িত্বরত ডিউটি অফিসার বলেন, শেষ হয়ে গেছে আবার আনা হচ্ছে।

গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানার হাজতে কোনো আসামি নেই। মেঝেতে বিছানাপত্র ছড়িয়ে–ছিটিয়ে আছে। পাশে দুটি পানির বোতল। এ সবই সেগুনবাগিচায় বসে ক্যামেরার চোখে দেখা।

দায়িত্ব পালনে অবহেলা দুর্ব্যবহার ক্ষেত্র-বিশেষে আসামি বা তার স্বজনদের বিশেষ সুবিধা দেয়াসহ বিভিন্ন সময়ে নানা অভিযোগ আসে থানা পুলিশের বিরুদ্ধে। এছাড়া নারী ও শিশুদের অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে কি-না, ডিউটি অফিসারের কক্ষে একই লোক বারবার আসছে কি না। সেন্ট্রি রাতে কলাপসিবল গেটে তালা দিয়ে ভেতরে বসে আছেন কিনা। এসব বিষয় ২৪ ঘণ্টা মনিটরিংয়ে ঢাকা রেঞ্জের ১৩ জেলার ৯৬টি থানায় ক্যামেরা বসানো হয়েছে।

পুলিশের এ কর্মকর্তা জানালেন, থানার কার্যক্রম সফল হলে পর্যায়ক্রমে সব জেলা সদর, বঙ্গবন্ধুর সমাধি, বিভিন্ন জাতীয় দিবস, ধর্মীয় উৎসবসহ বিভিন্ন কর্মসূচিও ক্যামেরা নিয়ে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। পাশাপাশি গ্রাম এলাকার বিরোধ নিষ্পত্তিতে ইউনিয়নগুলোকেও মৌজা ভিত্তিতে মনিটরিংয়ের আওতায় আনা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102