সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
“বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাই নাই” বেতন বৈষম্য নিরসনে লালমনিরহাটে মানববন্ধন সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের মরদেহে ডেপুটি স্পিকারের শ্রদ্ধাঞ্জলি লালমনিরহাটে ক্যাবে’র মতবিনিময় সভা লালমনিরহাটে পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে নেপালের রাষ্ট্রদূত ঘনশ্যাম ভান্ডারী লালমনিরহাটের প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ আমবাড়ীতে শ্রমিক লীগের আয়োজনে শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন নভেম্বরে জাপান সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে লালমনিরহাটে রক্তদান কর্মসূচী ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা তদন্তের নির্দেশ শেখ হাসিনা বহির্বিশ্বেও অন্যতম সেরা রাষ্ট্রনায়ক : রাষ্ট্রপতি

স্বাগতম-২০২১ : নতুন বছর নতুন স্বপ্ন

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৪১ বার দেখা হয়েছে
সম্পাদকের কলম থেকে

আসাদুল ইসলাম সবুজ, সম্পাদক, নতুন বাংলার সংবাদ ।। পূর্বাকাশে উদিত হল ভোরের সূর্য। একটু একটু করে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ল আলোর ঝরনাধারা। কুয়াশার চাদরে মুড়িয়ে থাকা প্রকৃতিও উঠল জেগে। আজকের এ সূর্য, আজকের এ ভোর নিয়ে এসেছে এক নতুনের বার্তা। বিদায়-২০২০ ও ২০২১ সালের প্রথম সূর্যোদয় এটি।

নতুন বছর সুন্দর হওয়ার বাসনায় সবাই রবি ঠাকুরের মতোই বলবেন, ‘দূর হইলো দৈন্যদ্বন্দ্ব/ছিন্ন হইলো দুঃখবন্ধ/উৎসবপতি মহানন্দ/তুমি সুন্দরতম’। সেই সুন্দরের প্রত্যাশাতেই স্বাগতম-২০২১। নতুন বছর মানেই নতুন উদ্দীপনা আর প্রেরণা নিয়ে এগিয়ে চলা। পেছনে ফেলে আসা ২০২০ সালের ভুল, হতাশা, দুঃখ, গ্লানিকে দূরে ঠেলে দিয়ে নতুন উদ্যমে সাহস নিয়ে পথচলা।

মহাকালে মিলিয়ে গেল আরও একটি বছর। পুরনো বছরের সকল জরা-জীর্ণতাকে পেছনে ফেলে পশ্চিম আকাশে মিলে গেল বছরের শেষ সূর্য। সেইন্ট গ্রেগরি প্রবর্তিত ক্যালেন্ডারের হিসাবে ২০২০ সাল শেষ হয়ে শুরু হল ২০২১ সাল। আজ নতুন বছরের প্রথম দিন। নতুন বছরে পা দিয়েছে সমগ্রবিশ্ব। আমাদের দেশে ইংরেজি নতুন বছর মানেই শীতের কুয়াশা ভেদ করে আসা নতুন সূর্যকে বরণ করে নেওয়া। এছাড়াও নতুন ইংরেজি বছরের আগমন উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদ। ২০২১ সাল কেমন যাবে তা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে।

সবাই চান সুখে-শান্তিতে-স্বস্তিতে কাটুক তাদের আগামী একটি বছর। উঠোনে বসে নতুন আসা নরম রোদকে সঙ্গী করে পিঠা উৎসবে মেতে ওঠা। নতুন বছর মানেই সবার কাছে নতুন দিনের প্রেরণা, নতুনভাবে জেগে ওঠার মিছিলে শামিল হওয়া, অনিষ্টের বিরুদ্ধে নতুন করে লড়াই করার স্বপ্ন দেখা। তাই পুরনো দিনের গ্লানি ভুলে নতুন বছরে নতুন ভাবে অগ্রসর হওয়ার তাগিদেই নতুন সূর্যকে আপন করে নেওয়া প্রয়োজন। বছরের শেষ দিনগুলো নির্বাচনী উত্তাপে পার করেছে বাংলাদেশ।

এদিকে এবারের ‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’ উদযাপনে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও বাড়তি আনন্দে ভাসবে গোটা দেশ। ইংরেজি নতুন বছর হওয়ায় তুলনামূলক নগরেই আনন্দের রেশটা বেশি। ঘড়ির কাঁটায় রাত ১১টা ৫৯ মিনিটের আগেই নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে মেতেছে গোটাবিশ্ব। বাংলাদেশের তরুণ-যুবকেরা মেতেছে উৎসবে। থার্টি ফার্স্ট উদযাপনে কড়াকড়ি থাকলেও বাধা মানতে নারাজ নগরবাসী।

সন্ধ্যার পর থেকে থেমে থেমে পটকা-আতশবাজি কুয়াশাচ্ছন্ন ঢাকার আকাশকে করে তুলেছে মোহনীয়। আর তার আগেই ভার্চুয়াল জগৎ ছাড়াও কার্ড, মোবাইলে এসএমএসে শুভেচ্ছা বিনিময়ে প্রিয়জনদের কাছে নতুন বছরের বার্তা পাঠাচ্ছেন সবাই।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102