বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন

সর্বানন্দ ইউনিয়নের প্রত‍্যেক ওয়ার্ডে কোরআন শিক্ষার ব‍্যবস্থা করবোঃ রাশেদুল ইসলাম

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩৫৬ বার দেখা হয়েছে

জয়ন্ত সাহা যতন,স্টাফ রিপোর্টারঃ সর্বানন্দ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হলে ইউনিয়নের প্রত‍্যেকটি ওয়ার্ডে কোরআন শিক্ষার ব‍্যবস্থা করবো।নির্বাচিত হওয়ার সাতদিনের মধ‍্যেই ইউনিয়ন বাসীর জন‍্য একটি এ‍্যাম্বুলেন্স উপহার দিবো। ইউনিয়ন পরিষদের সকল সেবা বিনামুল‍্যে দিবো।

ইউনিয়ন পরিষদের আমার সম্মানি ভাতা ইউনিয়নের মসজিদ মন্দিরের উন্নয়নের কাজে ব‍্যয় করবো। ইউনিয়নের বিচার ব‍্যবস্থার নিরপেক্ষ ভুমিকা পালন করবো।সর্বপরি সর্বানন্দ ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো ইনশাআল্লাহ। এভাবেই আসন্ন ২৮নভেম্বর ৬নং সর্বানন্দ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পথসভা ও উঠান বৈঠকে নিজের নির্বাচনি ইসতেহার মানুষের মাঝে তুলে ধরছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ রাশেদুল ইসলাম লিটন(চার্টার্ড একাউন্টেন্ট)।

আসন্ন ৬নং সর্বানন্দ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অটোরিক্সা প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ রাশেদুল ইসলাম লিটন এর নির্বাচনী উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ইউনিয়নের রামভদ্র জানপাড়ায় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

আঃ ছাত্তার মিয়ার সভাপতিত্বে ও রওশন নেওয়াজ এর সঞ্চালনায় অটোরিকশা প্রতীকের সমর্থনে বক্তব্য রাখেন- , রাজ্জাক আলী, মোহাম্মদ আলী,কাজী আশরাফ আলী,রফিকুল ইসলাম,মনজু মোল্লা,আলমগীর করীর,সাইফুল্লাহ মানছুর,সহ এলাকার গণ‍্যমান‍্য ব‍্যক্তিগণ।

এ সময় চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ রাশেদুল ইসলাম লিটন বৈঠকে উপস্থিত সকলের মাঝে উপরিক্ত ইসতেহার ঘোষণা সহ সকলের কাছে আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে আসন্ন ৬নং সর্বানন্দ ইউপি নির্বাচনে অটোরিক্সা মার্কায় ভোট কামনা করেন।

উক্ত নির্বাচনী উঠান বৈঠকে রাশেদুল ইসলাম লিটন এর নির্বাচনী ইসতেহারকে সমর্থন জানিয়ে তার পিতা জামাল হোসেন ভোলা বলেন, আমার ছেলে রাশেদুল ইসলাম লিটন কে সৎ যোগ‍্য মনে হলে আপনাদের মহামুল‍্যবান ভোট প্রদান করবেন। তিনি ইসতেহারে আরো একটি বিষয় যোগ করে বলেন বামনডাঙ্গায় আমার একটি সেবা কেন্দ্র আছে সেফা ডায়াগনস্টিক সেন্টার সেখানে সর্বানন্দ ইউনিয়নের অসহায় গরীব দুস্থদের বিনামূলে চিকিৎসা সেবা দিবো ইনশাআল্লাহ। সর্বশেষে তিনি বলেন আল্লাহ রহমতে আমার ছেলে নির্বাচিত হওয়ার পর যদি ইউনিয়ন পরিষদে কোন কাজে অযোগ্য মনে হয়,আমি কথা দিচ্ছি তাকে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরিয়ে নিবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102