রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১০:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ভুট্টাক্ষেতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ তিস্তা বাঁচাও ভাঙ্গন ঠেকাও শীর্ষক তিস্তা কনভেনশন কাজীর কান্ড! কাবিননামা নিতে ৩০ হাজার টাকা দাবি মাদক ব্যবসায়ীদের ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত! লালমনিরহাটে বিএনপির বাইসাইকেল র‍্যালিতে মির্জা ফখরুল লালমনিরহাটে অস্ত্রসহ ৪ জন জনতার হাতে আটক।। পুলিশে সোপর্দ শ্বশুর বাড়ির পাশে জামাতার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে দরপত্র দাখিলে বাঁধা দানের অভিযোগ

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৫১ বার দেখা হয়েছে
অভিযোগ পত্র।

আসাদুল ইসলাম সবুজ ।। লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়ের দরপত্র দাখিলে বাঁধানের অভিযোগ উঠেছে। রোববার (৩ জানুয়ারী) বিকেলে মিজান কোং লিমিটেডের প্রতিনিধি আরাফাত হোসেন অনিক স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালব বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ ও সদর হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থ বছরে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের জন্য ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রীয় ক্রয়(এমএসআর) করতে ৬টি প্যাকেজে দরপত্র আহবান করেন সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। প্রকাশিত বিজ্ঞাপ্তি অনুযায়ী ৮১টি দরপত্র বিক্রি করেন কর্তৃপক্ষ। যার দরপত্র দাখিলের শেষ সময় নির্ধারন করা হয় রোববার (৩ জানুয়ারী) সকাল ১১টা পর্যন্ত।

ঢাকা ধানমন্ডি এলাকার মিজান কোং লিমিটেড উক্ত দরপত্র ক্রয় করে রোববার (৩ জানুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০টায় সদর হাসপাতালের তত্ত্বধায়কের কার্যালয়ে একমাত্র দরপত্র বাক্সে দরপত্র দাখিল করতে যান কোম্পানির প্রতিনিধি আরাফাত হোসেন অনিক। এ সময় পুলিশের উপস্থিতিতে তত্ত্বধায়কের রুমের পাশে একটি চক্র তাকে বাঁধা দিয়ে দরপত্র ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। একপর্যয়ে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখেন চক্রটি।

দরপত্রে বাধাদানের অভিযোগ।

পরে ফোনে জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে তারা রক্ষা পেলেও তা দরপত্র দাখিলের সময় অতিক্রম করে। অবশেষে তত্ত্বধায়কের হাতে দরপত্র দাখিল করে চলে যান তিনি। কিন্তু নির্ধারীত সময় অতিবাহিত হওয়ায় তার দরপত্র গ্রহন করা হয়নি।

উক্ত দরপত্র বাতিলের দাবি করে মেইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকসহ বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মিজান কোং লিমিটেডের প্রতিনিধি অারাফাত হোসেন অনিক। একই ঘটনায় ৫জনের বিরুদ্ধে লালমনিরহাট সদর থানাও একটি অভিযোগ দায়ের করেন মিজান কোং লিমিটেডের প্রতিনিধি।

বাদি মিজান কোং লিমিটেডের প্রতিনিধি আরাফাত হোসেন অনিক বলেন, দরপত্র নিয়ে হাসপাতালের তত্ত্বধায়কের কক্ষে রাখা দরপত্র বক্সে দাখিল করতে যাই। এ সময় তত্ত্বধায়কের রুমের পাশেই বসে থাকা টেন্ডারবাজ চক্রটি দরপত্র ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে আমাকে অবরুদ্ধ করে সময় ক্ষেপন করেন। উপস্থিত পুলিশের সহায়তা চেয়েও পাইনি। সময় ক্ষেপন করে আমাকে ছেড়ে দেয়া হয়। তিনি ন্যায় বিচার দাবি করেন।

লালমনিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম বলেন, পুলিশ দরপত্র বক্সের পাশেই ছিল। যারা নির্ধারীত সময়ে পৌছে তারা দরপত্র দাখিল করেছেন। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে দায়িত্ব পালন করেছেন।

সদর হাসপাতালের তত্ত্বধায়ক ডা. সিরাজুল ইসলাম বলেন, তারা নির্ধারীত সময়ের কিছু আগে বক্সের পাশে পৌছলেও নিজেদের মধ্য ধস্তাধস্তির কারনে সময় ক্ষেপন করেন। নির্ধারীত সময়ের মধ্যে দরপত্র বক্স বন্ধ করা হয়। ১৮টি দরপত্র দাখিল হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102