বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন

লালমনিরহাটে দুর্বৃত্তদের হামলায় ৫ সাংবাদিক আহত, একজন আসামি গ্রেফতার

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২২
  • ৯২ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার।। পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে পৃথক স্থানে দুর্বৃত্তদের হামলায় লালমনিরহাটে ৫ জন সাংবাদিক আহত হওয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা দায়ের হওয়ার পর পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। বাকি আসামীরা ধরা ছোঁয়ার বাহিরেই রয়ে গেছে।

শনিবার (১৩ আগস্ট) লালমনিরহাট সদর থানায় ৪জনের নামসহ অজ্ঞাত ২০/২১জনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন যমুনা টিভি’র আহত সাংবাদিক আনিছুর রহমান লাডলা। এর আগে শুক্রবার (১২ আগস্ট) বিকেলে পেশাগত দায়িত্ব পালনে গিয়ে সদর উপজেলার পঞ্চগ্রামে আওয়ামী লীগ নেতা ও তার ছেলেদের হামলায় আহত হন ৫ জন সাংবাদিক। এরা হলেন- যমুনা টিভির লালমনিরহাট প্রতিনিধি আনিছুর রহমান লাডলা ও ক্যামেরা পার্সন আহসান হাবিব, প্রথম আলোর লালমনিরহাট প্রতিনিধি আব্দুর রব সুজন, এখন টিভির মাহফুজুল ইসলাম বকুল ও দৈনিক আজকের পত্রিকার হাতীবান্ধা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রবি।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজার রহমান মণ্ডলের ছোট ছেলে ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি দুই সন্তানের জনক সুলতান মণ্ডল (৩৮) প্রতিবেশী এক গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। কয়েকদিন আগে সেই গৃহবধূকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হন সুলতান মণ্ডল। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সে ঘটনার তথ্য সংগ্রহ করতে শুক্রবার বিকেলে ঘটনাস্থলে যান ৪ সাংবাদিক। তথ্য সংগ্রহ শেষে সুলতান মণ্ডলের বাড়ির পাশে হঠাৎ তাদের পথরোধ করেন আজিজার রহমান মণ্ডল ও তার বড় ছেলে সাহেদ মণ্ডল গংরা। এ সময় সাহেদ সাংবাদিকদের হাতে থাকা ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভাঙচুর করেন এবং ট্রাইপড দিয়ে সাংবাদিকদের এলোপাতারি মারধর শুরু করেন। পরে স্থানীয়রা আহত সাংবাদিকদের উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় আহত সাংবাদিক আনিছুর রহমান লাডলা ওই দিন মধ্যরাতে পঞ্চগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজার রহমান ও তার ৩ ছেলের নামসহ অজ্ঞাতনামা ২০/২১জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগটি আমলে নিয়ে নিয়মিত মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে সদর থানা পুলিশ। তবে শনিবার পেরিয়ে রবিবার দুপুর ২টায় মামলার ১নং আসামী সাহেব আলীকে কুড়িগ্রামের রাজারহাট থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বাকি আসামী দ্বয়কে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এদিকে একই দিন শুক্রবার দুপুরে হাতীবান্ধা উপজেলার সিন্দুর্না ১ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের রাস্তার পাশে সরকারি একটি গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছেন ওই এলাকার সাবেক পুলিশ সদস্য আনোয়ার হোসেন। তার ছবি তুলতে গিয়ে আনোয়ার হোসেনের হামলার শিকার হয়েছেন দৈনিক আজকের পত্রিকার হাতীবান্ধা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রবি।

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তীব্র নিন্দাসহ অভিযুক্তদের গ্রেফতার দাবি করেছেন বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা। মামলা নথিভুক্ত হলেও অভিযুক্তদের মধ্যে ১জন ছাড়া বাকিদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে জেলা জুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে ন্যাক্কারজনক এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানায় সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনগুলো। সাংবাদিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে এবং অভিযুক্তদের গ্রেফতার দাবিতে শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টায় জেলার মধ্যস্থল কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করেছে কালীগঞ্জ প্রেসক্লাব এবং বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম লালমনিরহাট জেলা ইউনিট। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে রবিবার (১৪ আগষ্ট) জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার সাংবাদিকগণ মানববন্ধন করেছেন। উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচিতে জেলার সব সংবাদকর্মী, সুশিল সমাজের প্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের মানুষকে অংশ নিয়ে গণমাধ্যম সুরক্ষা আইন বাস্তবায়নের দাবি জানান সংগঠনগুলোর নেতারা।

এ বিষয়ে লালমনিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, মামলা নথিভুক্ত করে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে অভিযুক্তদের মধ্যে ১নং আসামী গ্রেফতার করেছি, বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102