শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:১০ অপরাহ্ন

লালমনিরহাটে এসিডে দগ্ধ রেশমার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১
  • ৫৮৬ বার দেখা হয়েছে
রেশমা লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে।

স্টাফ রিপোর্টার ।। প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায়, এসিডদগ্ধ পোশাক শ্রমিক রেশমা আক্তারের উন্নত চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার। বর্তমানে রেশমা লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার প্রয়োজন মনে করছে তার পরিবার। রেশমা এর আগে শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে।

জানা গেছে, মেহেদী হাসান (১৯) নামের এক বখাটে ২০ মার্চ রাত সাড়ে ০৮ টায় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার শাসনগাঁও এলাকায় গার্মেন্টস থেকে ফেরার পথে এসিড জাতীয় দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে। তখন রেশমার সাথে তার বান্ধবী স্বপ্না (১৮) এসিড দগ্ধ হন। পরে, স্থানীয় বাসিন্দারা দুই তরুণীকে উদ্ধার করে হাসাপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটানায়, পোশাক শ্রমিক মোছা. রেশমা আক্তার ছাদিয়ার পিঠ হতে নিতম্ব পর্যন্ত ও তার বান্ধবী স্বপ্না আক্তারের ডান হাতের কনুইয়ের চামড়া ঝলসে গেছে।

পরে,রেশমার বাবা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় ২১/০৩/২০২১ইং তারিখে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ২২ মার্চ দুপুরের পর অভিযুক্ত মেহেদী হাসানকে গ্রেপ্তার করে আদালাতে সোপর্দ করেছে থানা পুলিশ। এদিকে রেশমার উন্নত চিকিৎসা ও আইনি সহায়তায় সরকার, বিভিন্ন এনজিও, সামাজিক সংগঠনসহ সমাজের বিত্তবানরা ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছে সুশীল সমাজ।

তবে রেশমার শরীরে কি ধরনের দাহ্য পদার্থ ছুড়ে মারা হয়েছিল জানতে চাইলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক সোহাগ চৌধুরী জানান, পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে রিপোর্ট পেলে জানানো হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102