বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন

যে সাপের দাম কোটি কোটি টাকা : চিনে নিন বহু মুল্যবান দু’মুখো সাপটি

বাংলার সংবাদ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৮২ বার দেখা হয়েছে

সাপের বিষ যে এক মহামূল্যবান পণ্য একথা কারোরই অজানা নয়। সাপের বিষ থেকে নানা ধরনের নেশাদ্রব্য, ঔষধ এবং যৌনশক্তি বর্ধক ইত্যাদি প্রস্তুত করা হয়ে থাকে তাই চোরাচালানের বাজারে এর মূল্য আকাশ ছোঁয়া।

তাই সরকারিভাবে সাপ ধরা এবং তার থেকে বিষ উৎখাটন করা বেআইনি হলেও অনেকেই অসৎ পথে এই উপায় অবলম্বন করে থাকে। তবে আপনি কি জানেন খোদ আমাদের দেশেই রয়েছে এমন একটি সাপ যার চোরাচালান বাজারে মূল্য প্রায় এক কোটি টাকা।

উত্তরপ্রদেশের মেরঠে হস্তিনাপুর থেকে গড়মুক্তেশ্বর এলাকায় পাওয়া এই “রেড স্যান্ড বোয়া” প্রজাতির এই সাপের মূল্য আন্তর্জাতিক বাজারে প্রায় এক কোটি টাকা। সাপটির শারীরিক বৈশিষ্ট্য গুলির মধ্যে এর পোড়া ইট এর মত গায়ের রং এবং তথাকথিত দুমুখো বৈশিষ্ট্যাবলী একে অন্যান্য সাপের থেকে অনন্য করে থাকে। তবে সাপুড়েদের মতে এই সাপটির আরো অনেক প্রজাতি রয়েছে।

লাল এবং হালকা হলুদ মিশ্রনের চামড়া যুক্ত এই সাপের গ্রন্থিতে রয়েছে এমন এক গুণ যা থেকে যৌনশক্তিবর্ধক ঔষধ এর পাশাপাশি এমন এক ঔষধী তৈরি করা যায় যাতে বয়সের ছাপ মানুষের শরীরে পরেনা। এছাড়াও মেরঠ ও লখিমপুরের বাসিন্দাদের বিশ্বাস অনুযায়ী এই সাপ সৌভাগ্য বৃদ্ধিতেও ব্যাপক কার্যকরী।

১৯৭২ সালে ভারত সরকার এই সাপের চোরাচালান বন্ধ করতে সংরক্ষিত প্রাণী হিসেবে সাপটিকে ঘোষণা করে। সাধারনত উত্তর প্রদেশ,বিহার, হরিয়ানা প্রভৃতি অঞ্চল থেকেই আন্তর্জাতিক বাজারে পাচার হয়ে গিয়ে থাকে এই সাপ।

তবে উপরিউক্ত ঔষধি গুলি ছাড়াও এই সাপের চামড়া থেকে পার্স,জুতো,জ্যাকেট ইত্যাদি তৈরি করা হয়ে থাকে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102