শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বসতভিটা ও চাষাবাদের ৩৩ শতক জমি রক্ষায় নিঃস্ব ফৈমুদ্দিন শুধুই কাঁদছেন! লালমনিরহাটের গোকুন্ডায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে অমানসিক নির্যাতনে অভিযোগ মই দিয়ে ৫ কোটি টাকায় সেতুতে উঠছেন স্থানীয়রা! ইলিয়াস মোল্লা’কেই পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে চায় লাউকাঠী ইউনিয়নবাসী শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ভুট্টাক্ষেতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ তিস্তা বাঁচাও ভাঙ্গন ঠেকাও শীর্ষক তিস্তা কনভেনশন কাজীর কান্ড! কাবিননামা নিতে ৩০ হাজার টাকা দাবি

ময়না তদন্তে মিললো ম্যারাডোনার চাঞ্চল্যকর তথ্য

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৪৬ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

বাংলার সংবাদ স্পোর্টস ডেস্ক ।। আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়েগো ম্যারাডোনার ময়না তদন্ত রিপোর্ট মৃত্যুর এক মাসের মাথায় প্রকাশ করা হয়েছে । এই প্রতিবেদনে জানা গেছে নতুন তথ্য। প্রথমে ধারণা করা হয়েছিল মাদকের ফলেই তার মৃত্যু হয়েছিল। তবে তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে, ১৯৮৬ বিশ্বকাপজয়ী এই তারকার মৃত্যু হয়েছে ঘুমের মধ্যে, হার্ট অ্যাটাকে।

গত ২৫ নভেম্বর আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সে নিজ বাড়িতে ম্যারাডোনার মৃত্যু হয়। আর্জেন্টিনার সাবেক অধিনায়কের আইনজীবী মাতিয়াস মোরলা দাবি করেছিলেন, অতিরিক্ত মাদক নেয়ার ফলেই মারা গেছেন ম্যারাডোনা। তিনি ডিএম-এর ব্যক্তিগত চিকিৎসক লিওপোল্ডো লুককেও কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর দাবি জানিয়েছিলেন।

দাবি মেনেই তদন্ত শুরু করে আর্জেন্টিনা পুলিশ। ময়না তদন্তের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, ম্যারাডোনার রক্তে অ্যালকোহল বা মারিজুয়ানার কোনো নমুনা পাওয়া যায়নি। তবে টক্সিলোজিক্যাল রিপোর্টে মাদক না পাওয়া গেলেও জানা গেছে, হতাশা কাটানোর জন্য নিয়মিত ওষুধ খেতেন তিনি।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, ম্যারাডোনার কিডনি ও ফুসফুস পুরোপুরি কার্যকারিতা হারিয়েছিল। সর্বকালের অন্যতম সেরা এই ফুটবলারের হৃৎপিণ্ড সাধারণ মানুষের হৃৎপিণ্ডের তুলনায় ওজনে দ্বিগুণ হয়ে উঠেছিল।

এসবের পাশাপাশি নানা শারীরিক জটিলতা এবং সপ্তাহ দুয়েক আগে করানো মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের ধাক্কাও ম্যারাডোনার মৃত্যুর অন্যতম কারণ বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। হৃৎপিণ্ড তার কাজ করার বন্ধ করে দেয়ায় ফুসফুসে তরলের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। এতেই ঘুমের মধ্যে এই কিংবদন্তির মৃত্যু হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102