সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ইলিয়াস মোল্লা’কেই পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে চায় লাউকাঠী ইউনিয়নবাসী শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ভুট্টাক্ষেতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ তিস্তা বাঁচাও ভাঙ্গন ঠেকাও শীর্ষক তিস্তা কনভেনশন কাজীর কান্ড! কাবিননামা নিতে ৩০ হাজার টাকা দাবি মাদক ব্যবসায়ীদের ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত! লালমনিরহাটে বিএনপির বাইসাইকেল র‍্যালিতে মির্জা ফখরুল লালমনিরহাটে অস্ত্রসহ ৪ জন জনতার হাতে আটক।। পুলিশে সোপর্দ

মনে বেদনা নিয়েই লন্ডন যাচ্ছেন খালেদা জিয়া

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৮৭ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

বাংলার সংবাদ ডেস্ক ।। এবার মিললো নতুন তথ্য। সরকার ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপনপূর্বক দেশ ও রাজনীতিকে বিদায় জানিয়ে গোপন এক বেদনা নিয়েই লন্ডনে পাড়ি জমাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আর এর নেপথ্যে বেশ কিছু কারণও উল্লেখ করেছেন তিনি। সম্প্রতি নির্ভরযোগ্য সূত্রে এমন খবর পাওয়া গেছে।

সূত্রের তথ্যমতে, দুর্নীতি মামলায় কারান্তরীণ, পরে দলীয় ব্যর্থতায় সরকারের মহানুভবতায় বিশেষ শর্তে মুক্তি পান বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া। শর্ত সাপেক্ষে মুক্তি পাওয়ায় তিনি রাজনৈতিকভাবে নিষ্ক্রিয়। তাছাড়া তিনি কারাগারে যাওয়ার পর থেকেই দলীয় ক্ষমতা কুক্ষিগত করে নিয়েছেন তার জ্যেষ্ঠপুত্র ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

দলে তার প্রভাব এতোটাই যে, ইউনিয়ন পর্যায়ের কমিটি গঠন করতে হলেও তার শরণাপন্ন হওয়া লাগে নেতাকর্মীদের। দিনকেদিন তারেকের এই স্বৈরাচারী মনোভাব আরও বিস্তৃত হচ্ছে। খালেদা তাই দলে নিজের প্রয়োজন ফুরিয়েছে ভেবে এখন সরকারের অনুকম্পায় লন্ডনে পাড়ি জমানোর কথা ভাবছেন।

কারণ, তার মুক্তিতে দল কোন ভূমিকা রাখেনি। তারেকও ছিল নীরব ভূমিকায়। সবমিলিয়ে যে দল, নেতাকর্মীদের জন্য রাজনীতি করা-তাদের এমন ব্যবহারে মনঃক্ষুণ্ণ খালেদা। তাছাড়া দীর্ঘদিন কারান্তরীণ থাকার ফলে সবার কাছেই তিনি আবেদন হারিয়েছেন। সব হিসেব-নিকেশ শেষে তাই তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, সরকার মহানুভবতার পরিচয় দিয়ে গত বছরের ২৫ মার্চ তার মুক্তি দিয়েছে।

মুক্ত জীবন দিয়েছে, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি লন্ডনে গিয়ে দল ও রাজনীতিমুক্ত জীবন যাপন করবেন। এক্ষেত্রে তার পরিবার সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে। তবে শেষ অবধি ফল কি হবে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

খালেদার লন্ডনযাত্রার বিষয়টি তাদের কাছে ‘অন্ধকার’ উল্লেখ করে বিএনপির একাধিক জ্যেষ্ঠ নেতা জানান, লোকমুখে শুনেছি ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) লন্ডনে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। তবে এ বিষয়ে দলের নেতাকর্মীরা তেমনভাবে কিছুই জানেন না। এমনকি এও শুনেছি, দল ও নেতাকর্মীদের উপর অভিমান করে ম্যাডাম এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, যা আমাদেরকে ব্যথিত করে তুলছে।

এ ব্যাপারে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, নিজের ফায়দা ও উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া সব করতে পারেন। ইতোপূর্বেও তিনি তাই করেছেন। এক্ষেত্রে যে তিনি লন্ডনে রাজনীতিমুক্ত জীবনযাপনের কথা বলে গিয়ে রাজনীতি করবেন না, তার কী গ্যারান্টি! তাদের কথা ও কাজে কোনদিনই এ দেশের মানুষ মিল পায়নি। তারা কোনভাবেই যাতে নিজেদের অসৎ উদ্দেশ্য সাধন করতে না পারে, সে বিষয়ে সরকারের পাশাপাশি এখন দেশবাসীকেও সতর্ক থাকতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102