সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন

বুড়িমারী স্থলবন্দরে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ২০৭ বার দেখা হয়েছে

আসাদুল ইসলাম সবুজ ॥ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দরে নভেল করোনা ভাইরাস শনাক্তে অ্যান্টিজেন টেস্ট এখনো শুরু করা হয়নি। সেই সাথে ভারতে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন সংক্রমণ বেড়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগের নতুন কোন নির্দেশনা দেওয়া হয়নি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো: সাইফুল ইসলাম। ক’দিন পূর্বে সরেজমিনে বুড়িমারী স্থলবন্দরে গিয়ে দেখা যায়, এ স্থলবন্দরের চেকপোস্ট দিয়ে ভারতীয় আমদানি করা পণ্যবাহী ট্রাকের চালক ও ভারত ফেরত পাসপোর্টধারী যাত্রীদের শুধু হ্যান্ড স্ক্যানার দিয়ে তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হচ্ছে। ইমিগ্রেশন চেক পোস্ট দিয়ে ভারত থেকে আসা সকল পাসপোর্ট যাত্রীদের ৭২ ঘন্টা মেয়াদি করোনা ভাইরাস নেগেটিভ সনদ দেখাতে হচ্ছে। এখন বর্তমানে ভারত ও নেপাল থেকে স্টুডেন্ড ভিসায় শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশে আসছে। আর বাংলাদেশী যারা ভারত থেকে আসছে তারা মেডিক্যাল ভিসায় ভারত চিকিৎসার জন্য গিয়েছিল। তাছাড়াও বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাচ্ছে ভারত ও নেপালের পাসপোর্ট যাত্রীরা। চলতি বছরের এই স্থলবন্দর দিয়ে ভারত ও ভুট্রানিরা বাংলাদেশে এসেছে। বাংলাদেশ থেকে ভারতে গিয়েছে পাসপোর্টধারী যাত্রীরা। এখন গড়ে প্রতিদিন ২৫ থেকে ৩০ জন পাসপোর্টধারী যাত্রী সহ ভারত থেকে ৩০০ থেকে ৪৫০ পণ্যবাহী ট্রাক যাওয়া আসা করছেন এ বন্দর দিয়ে। গত এক সপ্তাহে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশনে কোন পাসপোর্টধারী যাত্রী নেই। কিছু ভারতীয় ট্রাক চালকদের স্বাস্থ্যবিধি না মেনে বন্দর এলাকায় ঘুরতে দেখা গেছে। এর ফলে করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সংক্রমণ ছড়ার আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা। বুড়িমারী ইউনিয়নের বাসিন্দা নুর আলম বলেন, ভারতে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন সংক্রমণ বেড়েছে। কিন্তু ভারত থেকে পন্য নিয়ে আসা ট্রাক চালক অনেকে মাস্ক ছাড়া বাহিরে ঘোরা ফেরা করে। এতে করে ওমিক্রন সংক্রমণ বুড়িমারী ইউনিয়নে ছড়াতে পারে।
এ বিষয়ে বুড়িমারী স্থল শুল্ক স্টেশনের কাস্টমসের ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) মো. কেফায়েত উল্যাহ মজুমদার বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা কাস্টমসের সকল কার্যক্রম পরিচালনা করছি। কাস্টমসের সেবা গ্রহীতা বা সিঅ্যান্ডএফ যারা আছেন, তাদের মাস্ক পড়াসহ সাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বলা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102