মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১২:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ইলিয়াস মোল্লা’কেই পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে চায় লাউকাঠী ইউনিয়নবাসী শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ভুট্টাক্ষেতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ তিস্তা বাঁচাও ভাঙ্গন ঠেকাও শীর্ষক তিস্তা কনভেনশন কাজীর কান্ড! কাবিননামা নিতে ৩০ হাজার টাকা দাবি মাদক ব্যবসায়ীদের ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত! লালমনিরহাটে বিএনপির বাইসাইকেল র‍্যালিতে মির্জা ফখরুল লালমনিরহাটে অস্ত্রসহ ৪ জন জনতার হাতে আটক।। পুলিশে সোপর্দ

বাংলাদেশকে তিন প্রকল্পে ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ১০৮ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

বাংলার সংবাদ ডেস্ক ।। করোনা মোকাবিলা ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে বাংলাদেশকে তিনটি চুক্তির আওতায় ১ দশমিক শূন্য ৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক।

এ সংক্রান্তে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের ঋণচুক্তি হয়েছে। চুক্তিতে সই করেন ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন এবং বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানে নিযুক্ত সংস্থাটির কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা টিকা কেনাসহ তা সংরক্ষণ ও বিরতণে বিশ্বব্যাংকের দেয়া ৫০ কোটি ডলার ব্যয় করবে বাংলাদেশ সরকার। এছাড়াও এ অর্থ দিয়ে দেশের স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে কাজ করতে পারবে সরকার। আলাদা দুটি চুক্তির আওতায় ইজিপি’র আধুনিকায়ন ও সরকারি ক্রয়ে সচ্ছতা নিশ্চিতে অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে।

এ প্রসঙ্গে বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ অফিসের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন বলেন, করোনা সংকট বিশ্বজুড়ে একটি বিশাল চ্যালেঞ্জ হিসেবে দাঁড়িয়েছে। এখনো বাংলাদেশ এই চ্যালেঞ্জ ভালোভাবে মোকাবিলা করেছে। তবে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন টিকা কার্যক্রম জোরদার করা। মানুষের দক্ষতা বৃদ্ধি ও উৎপাদনশীলতা বাড়ানোর পদক্ষেপের ওপর নির্ভর করবে দেশের অর্থনৈতিক ভবিষ্যৎ।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বব্যাংক ঋণে প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় এক-তৃতীয়াংশকে টিকা দেয়া সম্ভব হবে। এছাড়া অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে প্রত্যক্ষ বেসরকারি বিনিয়োগ আকৃষ্ট হবে। পাশাপাশি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ইলেকট্রনিক সরকারি ক্রয় (ই-জিপি) কভারেজ বাড়াতে সহায়তা করবে বিশ্বব্যাংক।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102