মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন

পিলার বিহীন সেতু

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১
  • ৬১ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ ।। হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ৫নং আন্দিউড়া ইউনিয়নের হরিশ্যামা ও হাড়িয়া দুই গ্রামের একটি ঝুকিপূর্ণ সেতু দিয়ে যাতায়াত করছে সেতুর দুই পাড়ের গ্রামের হাজার হাজার মানুষ সেতুটি ৫নং আন্দিউড়া ইউ/পির হরিশ্যামা ও ৫নং ওয়ার্ড হাড়িয়া গ্রামের ভীতর দিয়ে প্রবাহিত বোয়ালিয়া খালের উপর অবস্থিত।

বৃষ্টি বা বর্ষার সময়ে এই খাল দিয়ে প্রচুর পরিমাণে বর্ষার পানি প্রবাহিত হয় ফলে ধীরে ধীরে সেতুটির প্রায় সবগুলি পিলারই ভেঙ্গে গেছে।সেতুটি বর্তমানে শূন্যের উপর ঝুলে আছে।সেতুটি দিয়ে যাতায়াত করা হয়ে পড়েছে সম্পূর্ণ ঝুকিপূর্ণ।এই ঝুকিপূর্ণ সেতু দিয়েই চলছে দুই গ্রামের হাজার হাজার মানুষ,গবাদিপশু সহ ছোট বড় যানবাহন।

স্থানীয় বাসিন্দা অর্জুন পাল বলেন, বর্তমানে সেতুটি সম্পূর্ণ ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।এই সেতু দিয়ে আমাদের হরিশ্যামা গ্রামের অনেক মানুষ যাতায়াত করে।সরকারি প্রাইমারি স্কুল ও একটি হাই স্কুল হাড়িয়া গ্রামের ভীতরে পড়েছে ফলে ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা স্কুলে যাওয়ার জন্য এই ঝুকিপূর্ণ সেতুটি ব্যবহার করছে ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃহানিফ মিয়ার কাছে এই ব্যাপারে মুটোফোনে জানতে তিনি বলেন,ব্রীজটি অনেক দিন ধরে পিলার বিহীনভাবে আছে।আমরা ইতি মধ্যে ব্রীজ নির্মানের ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যানসহ উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারকে অবগত করেছি।ব্রীজটির সম্পর্কে ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার তপন দাস এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এই ব্রীজের নীচ দিয়ে বালু ভর্তি নৌকা যাওয়ার ফলে

ব্রীজের পিলারের সাথে ঘর্ষন লেগে লেগে ব্রীজের পিলার প্রায় সব ভেঙ্গে গেছে ব্রীজটি ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় এখন আর নৌকা যায় না। নতুন ব্রীজ নির্মান হলে অত্র এলাকার জনগন উপকৃত হবে।এই ব্যাপারে আন্দিউড়া ইউ/পি চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাক আহমেদ হেলালের কাছে বার বার ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

ব্রীজটির সম্পর্কে উপজেলা এলজিইডি ইঞ্জিনিয়ার মোঃজুলফিকার হক চৌধুরী বলেন, ব্রীজটির ব্যাপারের আমরা অবগত আছি এই ব্যাপারে স্থানীয় এমপি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলী এমপি কে জানিয়েছি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102