সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
“বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাই নাই” বেতন বৈষম্য নিরসনে লালমনিরহাটে মানববন্ধন সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের মরদেহে ডেপুটি স্পিকারের শ্রদ্ধাঞ্জলি লালমনিরহাটে ক্যাবে’র মতবিনিময় সভা লালমনিরহাটে পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে নেপালের রাষ্ট্রদূত ঘনশ্যাম ভান্ডারী লালমনিরহাটের প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ আমবাড়ীতে শ্রমিক লীগের আয়োজনে শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন নভেম্বরে জাপান সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে লালমনিরহাটে রক্তদান কর্মসূচী ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা তদন্তের নির্দেশ শেখ হাসিনা বহির্বিশ্বেও অন্যতম সেরা রাষ্ট্রনায়ক : রাষ্ট্রপতি

নারীকে চোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা আ.লীগ নেতার বাড়িতে

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৮৮ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

বাংলার সংবাদ ডেস্ক ।। গাজীপুরে মোবাইলফোন চোর সন্দেহে মানসিক ভারসাম্যহীন নারী এসনেহারকে (৪০) পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ওই নারী ভোলা জেলার লালমোহন এলাকার সুলতান মিয়ার মেয়ে এবং ভ্যানচালক হোসেন আলীর স্ত্রী। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) মহানগরীর গাছা থানার কুনিয়া পাছর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সকালে এসনেহারকে চোর সন্দেহে কুনিয়া পাচরে সাবেক ব্যাংকার ও আওয়ামী লীগ নেতা শহীদ উল্লাহ বাড়িতে আটক করা হয়।

স্থানীয়রা সকাল ১১টায় তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই বাড়ি থেকে বের করে হাসপাতালে নিতে দেখেন। দুপুরে হাসপাতালের চিকিৎসকরা এসনেহারকে মৃত ঘোষণা করেন ।

এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. শহীদ উল্লাহ বলেন, আমি এখানকার বাড়ি ভাড়া দিয়ে উত্তরায় বসবাস করি।

শুক্রবার সকালে আমাকে ফোনে জানানো হয়, ছয় তলা বাড়ির ভাড়াটিয়ারা এক নারী চোরকে আটক করেছে। আমি তাদেরকে পুলিশে খবর দিতে বলি।

পরে আমি বাড়িতে এসে পুলিশের সহযোগিতায় ওই নারীকে হাসপাতালে নিয়ে যাই। ওই নারী গণপিটুনিতে মারা গেছে বলে দাবি করেন তিনি।

আশপাশের বাড়ির বাসিন্দারা জানান, ওই বাড়ির বাইরে কোনো গণপিটুনির ঘটনা ঘটেনি এবং এ ঘটনায় এলাকাবাসী জড়িত নন। বরং আওয়ামী লীগ নেতা শহীদুল্লাহর বাড়ির ভেতরেই ওই নারীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

গাছা থানার উপ-পরিদর্শক শরিফুল ইসলাম জানান, ওই নারীর পাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ পিটিয়ে থেঁতলে দেওয়া হয়েছে। শরীরে জ্বলন্ত রডের ছ্যাঁকার দাগও রয়েছে বলে তিনি জানান।

সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গাজীপুর শহিদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত নারীর স্বামী ভ্যান চালক মোহাম্মদ হোসেন জানান, এসনেহার মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল। দুটি শিশু সন্তান ঘরে রেখে সে প্রায়ই বাইরে বের হয়ে যেত।
আবার ফিরে আসত। সে চুরি করতে পারে না বলেও তিনি দাবি করেন।

এ ব্যাপারে গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেন বলেন, শুনেছি ওই নারীর মানসিক সমস্যা ছিল। তাকে কী কারণে কেন হত্যা করা হয়েছে তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102