শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১১:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বাড়ির দরজা কেটে দুর্ধর্ষ চুরি আগের মতো সড়কে চাঁদাবাজি হচ্ছে না : শাহজাহান খান লালমনিরহাটে ধর্ষণের চেষ্টায় জাসদ নেতা হাসমতের বিরুদ্ধে মামলা লালমনিরহাটে বসতভিটা ও চাষাবাদের ৩৩ শতক জমি রক্ষায় নিঃস্ব ফৈমুদ্দিন শুধুই কাঁদছেন! লালমনিরহাটের গোকুন্ডায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে অমানসিক নির্যাতনে অভিযোগ মই দিয়ে ৫ কোটি টাকায় সেতুতে উঠছেন স্থানীয়রা! ইলিয়াস মোল্লা’কেই পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে চায় লাউকাঠী ইউনিয়নবাসী শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

ডুমুর ত্বীন ফল চাষ

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৯ জুন, ২০২১
  • ১৫৭ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ ।। হবিগঞ্জের মাধবপুরে এখন ক্ষুদ্র পরিসরে ত্বীন ফল চাষ শুরু হয়েছে। এ ত্বীন ফল চাষে অনেকেই মনোযোগী প্রকাশ করেছেন। মরুভুমির মিষ্টি ফল ত্বীন। যা বাংলাদেশের ডুমুর হিসেবেই বেশি পরিচিত। দেখতে আকর্ষনীয় রসে ভরপুর এই ফলকে সৌদি আরবে ত্বীন নামে ডাকলেও ভারত, তুরস্ক, মিশর, জর্দান ও যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশে এটি আঞ্জির নামে পরিচিত।

আঁটি ও বিচিহীন দৃষ্টিনন্দন ফলটি আবরণ সহকারেই খাওয়া যায়। দেশের বাজারে এই ফল ১ হাজার টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। সুস্বাদু পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ ও উচ্চ ফলনশীল এই ফল দেশের বিভিন্ন স্থানে বাণিজ্যিকভাবে চাষ শুরু হয়েছে। সম্প্রতি মাধবপুর উপজেলার শাহপুর এলাকায় মিসির আলী নামের এক কৃষক শুরু করেছেন ত্বীন ফলের চাষাবাদ।

জানা যায়, গত বছরের অক্টোবরে মিসির আলী আরব আমিরাত প্রবাসী ছোট ভাই ১শ ২০টি ত্বীন ফলের চারা নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে প্রায় ৩৬ শতাংশ জমিতে চারাগুলো রোপন করে পরিচর্যা শুরু করেন মিসির আলী। রোপনের ৩ মাসের মাথায় ফল ধরা শুরু হয়। বর্তমানে প্রতিটি গাছে ২-৩ কেজি করে ফল আছে। কৃষি অফিস থেকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও সহযোগিতা পেলে আরও বড় পরিসরে করতে চান ত্বীন ফলের চাষাবাদ।

তিনি আরও জানান, যে কেউ চাইলে তার কাছ থেকে টাটকা ফল সংগ্রহ করতে পারবেন। এমনকি চারাও বিক্রি করার পরিকল্পনা আছে তার।

একই বিষয়ে মাধবপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আল মামুন হাসান জানান, বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ ফলের মধ্যে একটি হলো ডুমুর। আমরা এই ধরনের ফল চাষে সবসময় কৃষকদের উদ্ধুদ্ধ করি এবং তাকে সাধুবাদ জানাই। তার এই ফল চাষাবাদ সম্প্রসারণের জন্য আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এছাড়াও আমরা চারা বিতরণ কার্যক্রমে তার কাছ থেকে চারা কিনে বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102