শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৫০ পূর্বাহ্ন

গুলশান গ্যারিশনে গৃহবধূকে হত্যা স্বামী নিখোজ

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ মে, ২০২১
  • ১৬৮ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

মোঃ ইউসুফ শেখ, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ::: ফুলতলা উপজেলার খানজাহান আলী থানাধীন আটরা গিলাতলা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের গ্যারিসন গুলশানে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে খানজাহান আলী থানা পুলিশ।

মৃত শহীদের কন্যা রুনু (৩৮) এর সাথে ডুমুরিয়ার মামুনের সাথে প্রায় ১২ বছর আগে বিয়ে হয়। জানা গেছে দম্পতি জীবনে তাদের কোন সন্তানাদি ছিলো না। তারা মাত্তম ডাঙ্গার মিরাজের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

বাড়ির মালিক কথা বলে জানা গেছে, গৃহবধূ খাদিজা আক্তার রুনু গ্রামে ঘুরে ঘুরে কাপড় বিক্রি করতেন, এবং তার স্বামী মামুন পেশায় সিএনজিচালক ছিলেন। বাড়ির মালিক মেরাজ আরো বলেন, কিছুদিন পরপরই সংসারে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতো।

খাদিজার মা আমেনা বেগম বলেন রবিবার দুপুরের পর রুনুর এবং তার স্বামী মামুনের মোবাইলে একাধিকবার ফোন দেই। খাদিজার মা দুজনের ফোনে অনেকবার কল দেয়,ফোনে না পেয়ে ইউপি সদস্য মাহমুদ হাসানের কাছে সন্ধ্যার দিকে যায় ,এসময় ইউপি সদস্য কে সাথে নিয়ে রুনুর ভাড়া বাড়িতে গিয়ে দেখি রুমের মাঝে রুনুর মরদেহ পড়ে রয়েছে।

পরে ইউপি সদস্য মাহমুদ হাসান থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে রাত ১০টার দিকে কে এম পির ডিসি নর্থ মোল্যা জাহাঙ্গীর হোসেন, সহকারী পুলিশ কমিশনার দৌলতপুর জোন অমিত বর্ধন, খানজাহান আলী থানা অফিসার ইনচার্জ প্রবীর কুমার বিশ্বাস সহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যায় ।

নিহত রানুর মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। খানজাহান আলী থানার ওসি প্রবীর কুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার পর থেকে তার স্বামী পলাতক রয়েছে, লাশের ময়নাতদন্ত করার জন্য খুমেক হাসপাতালে পাঠানো হবে ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102