শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন

কোনো চাপ অনুভব করছি না : সিইসি

বাংলার সংবাদ ডেস্ক ।।
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৬ বার দেখা হয়েছে
ছবি : সংগৃহীত

গাইবান্ধা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ বন্ধ করে নির্বাচন কমিশন কোনও চাপ অনুভব করছে না বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশননার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

তিনি বলেন, আমরা কোনও চাপ অনুভব করছি না। আমরা আমাদের কাজ করছি। রবিবার (১৬ অক্টোবর) নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সিসিটিভি মনিটর করে গাইবান্ধা উপ-নির্বাচন বন্ধ করে অনেকের বাহবা পেয়েছে ইসি, আবার রাজনীতিবিদদের থেকে সমালোচনাও পেয়েছে; এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ইসি চাপ অনুভব করছেন কী না— সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি এসব কথা বলেন।

জেলা পরিষদ নির্বাচনে একই চিত্র দেখতে পেলে কী করবেন— এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, আগাম কিছু বলতে পারছি না। আর এটা একটা ভিন্ন ধরনের নির্বাচন, এখানে নির্বাচকমণ্ডলীরা ভোট দেবেন। তারপরও সবাই বসবো, এ বিষয়ে এককভাবে আমি কিছু বলতে পারবো না যে, কালকে কী করবো বা আরও কী করবো। আপনারা দেখেন।

এসময় সিসিটিভির প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, এই সিসিটিভিটা স্বচ্ছতা, ভোটাররা ভোট দিতে পারছে কিনা। আমরা কিন্তু কোনও পক্ষ নই। আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে ভোটার যাতে ভোটটা দিতে পারেন।

নির্বাচন মনিটরিংয়ে সিসিটিভি নতুন উদ্যোগ উল্লেখ করে সিইসি বলেন, সিসিটিভির প্রচলনটা সাম্প্রতিক। আমরা এর আগে দুটি নির্বাচন করেছি। আর এটা নিঃসন্দেহে একটা অগ্রগতি- ভোটাররা যাতে ভোট দিতে পারে তা আমরা কেন্দ্রীয়ভাবে মনিটর করি। এটা একটা ভালো উদ্যোগ।

সংসদ নির্বাচনে কীভাবে এতগুলো কেন্দ্র সিসিটিভি ক্যামেরায় পর্যবেক্ষণ করা হবে— জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেন, তখন ৪০ বা ৪২ হাজার ভোটকেন্দ্রের ৪ লাখ ভোটকেন্দ্র থাকবে। আমাদের কারিগরি টিম জানিয়েছে, সেখানে সিসিটিভি ব্যবহার করা যাবে। তখন শুধু আমরা ৫ নির্বাচন কমিশনার না, আরও লোকবল মনিটরিংয়ের জন্য নিয়োগ করা হবে। নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারাও এ কাজে নিয়োজিত থাকবেন।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, গাইবান্ধার নির্বাচনের মতোই আগামীকালের জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রতিটি কেন্দ্রে সিসিটিভি ক্যামেরা ব্যবহার করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102