মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন

কাউনিয়ায় সালিশ-বৈঠকে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৯০ বার দেখা হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

কাউনিয়া প্রতিনিধি ।। রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছে আব্দুল হালিম (৫৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার রাতে রংপুরের হারাগাছের সীমান্তবর্তী লালমনিরহাটের খুনিয়াগাছ চরটাংরির বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত ব্যক্তি হারাগাছ পৌরসভার পাইকার বাজারের ছমাস উদ্দিনের ছেলে। নিহত আব্দুল হালিম দীর্ঘদিন ধরে তামাক, জর্দা, গুল ও বিড়ির ব্যবসা করে আসছেন। এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হারাগাছ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মামুনুর রশিদ।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় হারাগাছ পৌর এলাকায় বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ী ও গ্রামবাসীরা। নিহতের বড়ছেলে মোহন মিয়া দাবি করেন, স্থানীয় একজন ব্যক্তির তামাক ব্যবসার পাওনা টাকার বিরোধ মেটাতে ডাকা সালিশ বৈঠকে গিয়ে তার বাবা আব্দুল হালিম হত্যার শিকার হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাতে লালমনিরহাটের খুনিয়াগাছের চরটাংরির বাজারে সাবেক ইউপি সদস্যের বাড়িতে সালিশ বৈঠক বসেছিল। বিরোধ মেটাতে সেখানে তার বাবাও ছিলেন। বৈঠকে তার বাবার তোলা একটি প্রস্তাবকে কেন্দ্র করে হট্টগোল শুরু হলে বিক্ষুব্ধরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে।

মোহন মিয়া আরও বলেন, আমি অন্যের কাছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওখানকার গ্রামবাসীকে অনেক অনুরোধ করেছি। কিন্তু হট্টগোল শুরু হলে ফজু মিয়া ও ফজলু উদ্দিন নামে দুইজনসহ অনেকে আমার বাবাকে বেধড়ক মারধর করতে থাকে। এতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয়রা জানান, পাওনা টাকা নিয়ে মঙ্গলবার রাতে খুনিয়াগাছে সাবেক ইউপি সদস্যের বাসায় সালিশ বৈঠক বসে। সেখানে সালিশ বৈঠকের সিদ্ধান্ত পছন্দ না হওয়ায় একপর্যায়ে মারামারি শুরু হয়। এ সময় মারাত্মক আহত হন ব্যবসায়ী আবুল হালিম। তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে হারাগাছ পৌরসভার পকিহাটা ব্রিজের সামনে তিনি মারা যায়।

রাতে লালমনিরহাট ও হারাগাছ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

হারাগাছ মেট্রোপলিটন থানার ওসি রেজাউল ইসলাম বলেন, আমরা পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখছি। এখনো ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে আসেনি। বিষয়টি নিয়ে লালমনিরহাট থানা পুলিশও কাজ করছে। তামাক ব্যবসার পাওনা টাকার বিরোধ থেকে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে তিনি জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102