শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমনিরহাটে বসতভিটা ও চাষাবাদের ৩৩ শতক জমি রক্ষায় নিঃস্ব ফৈমুদ্দিন শুধুই কাঁদছেন! লালমনিরহাটের গোকুন্ডায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে অমানসিক নির্যাতনে অভিযোগ মই দিয়ে ৫ কোটি টাকায় সেতুতে উঠছেন স্থানীয়রা! ইলিয়াস মোল্লা’কেই পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে চায় লাউকাঠী ইউনিয়নবাসী শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ভোঁ-দৌড় দিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা! লালমনিরহাটে পানির নিচে কৃষকের স্বপ্নের ধান! হাতীবান্ধায় ন্যাশনাল ব্যাংকের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ভুট্টাক্ষেতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ তিস্তা বাঁচাও ভাঙ্গন ঠেকাও শীর্ষক তিস্তা কনভেনশন কাজীর কান্ড! কাবিননামা নিতে ৩০ হাজার টাকা দাবি

আগামী নির্বাচনে নৌকার মাঝি হয়ে শক্ত হাতে বৈঠা ধরবেন মিরান!

নতুন বাংলার সংবাদ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৫৬ বার দেখা হয়েছে

রাশেদুল ইসলাম রাশেদ।। দিন-ক্ষণ ঠিক না হলেও একটু আগেভাগেই আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেশ তোড়জোড় শুরু হয়েছে। গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ২নং সোনারায় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসেবে নৌকার সম্ভাব্য প্রার্থী সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ আ’লীগ ২ নং সোনারায় ইউনিয়ন শাখা সৈয়দ আবু নাছের মিরানকে চেয়ারম্যান হিসেবে চাচ্ছে এলাকাবাসী।

পুরো ইউনিয়ন জুড়ে মিরানের পোস্টার, প্যানা, ফেস্টুন ও ব্যানার শোভা পাচ্ছে। পাড়া-মহল্লা, চায়ের টেবিলসহ বিভিন্ন আড্ডায় আলোচনা হচ্ছে সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ আ’লীগ ২ নং সোনারায় ইউনিয়ন শাখা সৈয়দ আবু নাছের মিরানকে নিয়ে।

সরেজমিনে ঘুরে এলাকাবাসীর কাছে জানা যায় যে,এবার ২ নং সোনারায় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চান মিরানকে । দলীয় প্রতীক নৌকা নিয়ে বর্তমান সরকারের স্বপ্ন পূরণে মিরানের বিকল্প নেই বলে জোরদার আলোচনা চলছে মহল্লার অলিতে গলিতে । ইতিমধ্যে নৌকার প্রচার-প্রচারণায় তিনি রয়েছেন সবার শীর্ষে।

এলাকাবাসী বিশ্বাস করেন মিরান ২ নং সোনারায় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে এই অঞ্চলের সার্বিক উন্নয়ন হবে । এলাকার রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন চেয়ারম্যান হিসেবে মিরান আগামীতে প্রতিনিধিত্ব করলে সোনারায় ইউনিয়ন এর প্রকৃত উন্নয়ন সম্ভব হবে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে সৈয়দ আবু নাছের মিরান জানান, দেশ যে গতিতে এগিয়ে চলেছে, সে গতিতে ২ নং সোনারায় ইউনিয়নের উন্নতি হচ্ছে না। অনেকগুলো মৌলিক নাগরিক সুবিধা থেকে এখনও ইউনিয়নবাসী বঞ্চিত। এ সব বিষয় আমাকে খুব যন্ত্রণা দিয়েছে। আমি মনে করেছি, এখানে আরও বৃহত্তর পরিসরে দায়িত্ব নিয়ে কাজ করার প্রয়োজন রয়েছে। প্রতিটি গ্রাম হবে শহর স্লোগানে- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা অনুযায়ী যেভাবে দেশ এগিয়ে যাবে, তার সাথে সাথে সোনারায় ইউনিয়ন এগিয়ে যাবে বলে দাবী মিরানের ।

সৈয়দ আবু নাছের মিরান আরো বলেন, আমি জনগণের খেদমত করতে চাই। সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠী ও এলাকার মানুষের জন্য কাজ করা আমার স্বপ্ন। এতদিন ব্যক্তিগত উদ্যোগসহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক সোনারায় ইউনিয়ন শাখার পক্ষ থেকে সামাজিক কর্মকাণ্ড করে আসছিলাম। সেবার পরিধি বাড়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দলীয় প্রতীক নৌকা নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবো। দলীয় নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খীদের নিয়ে ভোটারদের বাড়িতে বাড়িতে উঠান বৈঠক হচ্ছে । নির্বাচিত হলে মিরান কি করবেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,নির্বাচিত হলে এলাকাবাসীকে সঙ্গে নিয়ে সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত করে সোনারায় ইউনিয়নকে একটি বাসযোগ্য অত্যাধুনিক উন্নত জনপদ হিসেবে গড়ে তুলবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2017 notun-bdsangbad
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102